রাউজানের হাকিম নিখোঁজের ৯ দিন পর ঢাকায় গ্রেপ্তার বিপুল পরিমাণ অশ্লীল পাইরেটেড সিডি তৈরির সরঞ্জামাদি ও অস্ত্রসহ অডিও ভিডিও উদ্ধার

    0
    13

    রাউজানটাইমস ২৪ ডেস্ক :-

    Raozan-Opohoron-pic1-663x525ঢাকায় বড় ধরনের এক পাইরেসি চক্রকে র‌্যাবের কৌশলে জালে আটক করা সম্ভব হয়েছে। এ চক্রের মাথা হচ্ছে সাগর ওরফে জনি চৌকিদার। আর তাদের অন্যতম সহযোগী হচ্ছে চট্টগ্রামের হাকিম। বাড়ি রাউজানে। র‌্যাব কর্মকর্তাদের দাবি, হাকিমকে অস্ত্র ও ভারতীয় মুদ্রাসহ মঙ্গলবার রাতে ঢাকা থেকে আটক করার পর এই দলের মাথাসহ অন্য সহযোগীদের গ্রেপ্তার করা হয়। তবে, চট্টগ্রামের সংশ্লিষ্ট এক সূত্রের দাবি, বেশ ৯ দিন আগে হাকিমকে চট্টগ্রাম থেকে আটক করে র‌্যাব। এরপর থেকে তার আর কোনও সন্ধান মেলেনি। র‌্যাবের দাবি, গত মঙ্গলবার রাতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিপুল পরিমাণ অশ্লীল অডিও ভিডিও পাইরেটেড সিডি, তৈরির সরঞ্জামাদি ও অস্ত্রসহ অডিও ভিডিও পাইরেসি সম্রাট সাগর ওরফে জনি চৌকিদার, দেশ ইউনানী হারবাল এর মালিক হাকিমসহ পাইরেসি চক্রের মোট ৯ জন সদস্য গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
    গতকাল ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, এই পাইরেসি দলের সদস্যরা সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা ছবির মাস্টারকপি সংগ্রহ করে সেখান থেকে গোপনে সিডি/ডিভিডি কপি করে সারাদেশে ছড়িয়ে দেয়। এ কাজে সবচেয়ে অভিজ্ঞ হচ্ছেন পাইরেসি জগতের সম্রাট সাগর ওরফে জনি চৌকিদার।
    র‌্যাব কর্মকর্তারা জানান, এ সব কাজে সাগরকে সকল ধরনের আর্থিক সহায়তা করে থাকে দেশ ইউনানী হারবাল এর মালিক চট্টগ্রামের হাকিম। র‌্যাব জানায়, দেশ ইউনানী হারবাল এর মালিক মো. হাকিম তার কোম্পানির নাম প্রচারের জন্য বিভিন্ন নামে যেমন- ফেয়ার লুক (লোশন), মধু অর্মিত (পাউডার), শক্তি প্লাস (হালুয়া), লাভ ফরেভার (হালুয়া) এবং বডি বিল্ডু (পাউডার) বিভিন্ন মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা করে থাকে। তার এই প্রচার কাজকে বেগবান করার জন্য তিনি এই পাইরেসি জগতের সাথে নিজেকে গত ৩/৪ বছর যাবৎ যুক্ত করেন এবং বড় অংকের টাকার বিনিময়ে তিনি সাগরের কাছ থেকে সদ্য মুক্তি পাওয়া ছবি সংগ্রহ করে রাজুর মাধ্যমে তার কোম্পানির নাম সেখানে এডিট করে জুয়েলের মাধ্যমে নিজে এবং আজিম, বাবু এবং বক্করের মাধ্যমে সিডি আকারে এক থেকে দুই দিনের ভিতর দেশের এক প্রান্ত হতে অন্য প্রান্তে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন। তাছাড়া, সাগরের কাছ থেকে ছবি সংগ্রহ করার পর হাকিম তার সহযোগী ইব্রাহীমের মাধ্যমে ইন্টারনেটে ইউটিউবের মাধ্যমে তার কোম্পানির নাম ঢুকিয়ে ছবি মুক্তির পূর্বেই ছড়িয়ে দেন।
    র‌্যাবের দাবি হচ্ছে, তাদের গোয়েন্দা নজরদারি তৎপরতায় ইতিপূর্বে পাইরেসি ও অশ্লীলতার সাথে সম্পৃক্ত বিখ্যাত ডন বিপ্লব, পাইরেসি তুষার, মো. বনি ইসলাম ওরফে নোবেলসহ ২৩০০ (দুই হাজার তিনশত) জনকে র‌্যাব গ্রেপ্তার করে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ৭৭৭টি এবং উদ্ধার করা হয় প্রচুর পরিমাণ ল্যাপটপ, ১০১৩টি সিপিইউ, ১৩০৪টি সিডি/ডিভিডি রাইটার, ১২২টি হার্ডডিস্ক, ১৯,৯৮,৭৩৪টি পার্ণো/অশ্লীল সিডি, ২৬,৫১,২৩৮টি পাইরেটেড সিডি, ৩১৭টি ব্লু ফিল্ম ও কাটপিস রিল, ৮৪,৭৩০টি পোস্টার, ৪,৮০,০০০টি সিডির নকল লেভেল এবং লক্ষাধিক ব্লাংক সিডি। এতদসংশ্লিষ্ট অপরাধীদের র‌্যাব আইনের হাতে সোপর্দ করে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here