সাংবাদিক নেতা আলতাফ মাহমুদের ইন্তেকাল

    0
    12

    24-01-16-Journalist-Altaf-M-333x525বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি, দৈনিক ডেসটিনির নির্বাহী সম্পাদক এবং বিশিষ্ট সাংবাদিক আলতাফ মাহমুদ (৬৫) গতকাল রবিবার সকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি … রাজিউন)। তিনি স্ত্রী, এক পুত্র, ২ কন্যা, আত্মীয়-স্বজন, সাংবাদিক সহকর্মী এবং অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। স্পাইনাল কর্ডে সমস্যাজনিত কারণে তিনি গত ১৪ জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি হন। পরে ২১ জানুয়ারি একই হাসপাতালে তার অস্ত্রোপাচার সম্পন্ন হয়।
    সাংবাদিক আলতাফ মাহমুদের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। রাষ্ট্রপতি এক শোক বার্তায় বলেন, সাংবাদিকতায় আলতাফ মাহমুদের অবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। তার মত একজন সিনিয়র সাংবাদিকের মৃত্যু দেশের সাংবাদিকতার জন্য এক অপুরণীয় ক্ষতি। রাষ্ট্রপতি আলতাফ মাহমুদের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন এবং তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাংবাদিকতার পাশাপাশি গণতান্ত্রিক আন্দোলন এবং জাতির ক্রান্তিকালে আলতাফ মাহমুদের অবদান স্মরণ করেন। তিনি বলেন, তার মৃত্যুতে সাংবাদিকতা জগতে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে। তিনি তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং মরহুমের শোক-সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।
    আলতাফ মাহমুদের নামাজে জানাজা দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব চত্বরে অনুষ্ঠিত হয়। এতে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক, খাদ্যমন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম, বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, দৈনিক সমকালের সম্পাদক গোলাম সারওয়ার, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলাম চৌধুরী, বিএফইউজের সহ-সভাপতি জাফর ওয়াজেদ, মহাসচিব ওমর ফারুক, কোষাধ্যক্ষ মধুসূদন মন্ডল, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আতিকুর রহমান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক কুদ্দুস আফ্রাদ, বিএফইউজের অপর অংশের সভাপতি গোলাম মহিউদ্দিন খান, মহাসচিব সৈয়দ মেজবাহ উদ্দিন , ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (অপর অংশের) সভাপতি এলাহি নেওয়াজ খান, সাধারণ সম্পাদক খায়রুল আলম বকুল, তথ্যসচিব মরতুজা আহমেদ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক স্বপন সাহা, বিএফইউজের সাবেক সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, সাবেক মহাসচিব আব্দুল জলিল ভূঁইয়া, পিআইবির মহা পরিচালক শাহ আলমগীর, প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব আশরাফুল হক খোকন এবং মামুনুর রশিদসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের সিনিয়র সাংবাদিক, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ নামাজের জানাজায় অংশ গ্রহন করেন।
    বিশিষ্ট সাংবাদিক আলতাফ মাহমুদ তার বর্ণাঢ্য কর্মজীবনে দৈনিক খবর, দৈনিক ডেসটিনি এবং বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল মাই টিভিতে কর্মরত ছিলেন। বেশ কিছুদিন ধরে তিনি বিভিন্ন টেলিভিশনের টক শোতেও স্বক্রিয় ছিলেন। অবিভক্ত সাংবাদিক ইউনিয়ন থাকা অবস্থাসহ তিনি ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়ন (ডিইউজে) এবং বিএফইউজের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক পদ ছাড়াও বিভিন্ন পদে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি একজন নির্ভিক গণতান্ত্রিক ও প্রগতিশীল সাংবাদিক ছিলেন। সাংবাদিকদের কল্যাণে তিনি আজীবন কাজ করেছেন। এছাড়া তিনি সৎ সাংবাদিকতার পাশাপাশি সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ে ও গণমাধ্যমের স্বাধীনতা রক্ষার কাজ করেছেন। আলতাফ মাহমুদ গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা রক্ষায় কাজ করেছেন। আলতাফ মাহমুদের মরদেহ হেলিকপ্টার যোগে পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার তার গ্রামের বাড়িতে নেয়া হয়। সেখানে বাবার কবরের পাশে তাকে দাফন করা হবে।
    বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন (বিএফইউজে)র সভাপতি আলতাফ মাহমুদের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে), চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব, চট্টগ্রাম সাংবাদিক কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটি। চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি এজাজ ইউসুফী, সাধারণ সম্পাদক হাসান ফেরদৌস, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি কলিম সরওয়ার, সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী, বিএফইউজে সহ-সভাপতি শহীদ উল আলম, যুগ্ম-মহাসচিব তপন চক্রবর্তী, কার্যনির্বাহী সদস্য নওশের আলী খান ও আসিফ সিরাজ, চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি শামসুল হক হায়দারী ও সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মাদ শাহ নওয়াজ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক কো আপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির চেয়ারম্যান মইনুদ্দিন কাদেরী শওকত, সম্পাদক মোরশেদ আলম, বাংলাদেশ ফটোজার্নালিস্ট এসোসিয়েশন চট্টগ্রামের সভাপতি মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু ও সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান।
    পৃথক বিবৃতিতে বলেন, সাংবাদিককের পেশার মর্যাদা রক্ষা, অধিকার আদায়ের সংগ্রামে তিনি ছিলেন লড়াকু যোদ্ধা। আলতাফ মাহমুদের অকাল মুত্যুতে সাংবাদিক সমাজের অপুরণীয় ক্ষতি হল। তিনি ছিলেন আমৃত্যু একজন পেশাদার সাংবাদিক। বিবৃতিতে শোক সন্তপ্ত পরিবার বর্গের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে নেতৃবৃন্দ বলেন, সাংবাদিকদের রুটি-রুজির সংগ্রামে আলতাফ মাহমুদের আবদান চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here