গহিরায় ফেইসবুক সংগঠন ‘উই লাভ গহিরা’র পিঠা উৎসবে মেতেছে বধূ, কন্যারা

    0
    22

    raozan pic-pita-1জাহেদুল আলম :  নকশি, ছটকা, শীত, চিতল, নারকেল, তুষা, ফুলপুচি, মধু, সাজ, হাজুরা, মইন, কামরাঙ্গা, গোলাপ, শিল ভাজা, তাল, ঝিনুক, মাছ, গজা, চিকেন, চিকেন শর্মা, সেমাই, মচমচ-এগুলো নানা রঙ্গের, নানা স্বাদের, নানা ডিজাইনের পিঠার নাম। সুদৃশ্যে টেবিলে কাচ আর প্লাস্টিকের তালায় তরে তরে সাজিয়ে রাখা হয়েছে এসব পিঠা। পিঠার সামনে জুড়ে দেয়া হয়েছে কোন পিঠার কি নাম। পাড়ার বধূ কিংবা সাধারন পরিবারের যুবতি মেয়েরা নিজেরাই বানিয়ে নিয়ে এসেছেন এসব পিঠা। উদ্দেশ্যে নতুন প্রজন্মের কাছে বাঙ্গালী ঐতিহ্য আর নব সৃষ্ঠিকে তুলে ধরা। রকমারি এই পিঠা দেখতে একের পর ছুটে আসছেন স্কুল, কলেজ, মাদরাসার শিার্থী, সমাজের বিভিন্নস্তরে থাকা উৎসুক মানুষ। এ দৃশ্যেটি চোখে পড়েছে রাউজান পৌরসভার গহিরা ডিগ্রী কলেজের মুক্ত মঞ্চ মাঠে। মঞ্চ মাঠের পাশে লাগানো পুকুরের আশে পাশে ফুলে ফুলে ভরা। ফুল আর পুকুরের সৌন্দর্য্যেেক আরও ভিন্নমাত্রা দিয়েছে গ্রামের বধূদের হাত বানানো নানা বাহারী পিঠার নহর। বুধবার সকাল থেকে গহিরা ডিগ্রী কলেজের মুক্ত মঞ্চ মাঠে ব্যতিক্রমধর্মী এক পিঠা উৎসব আয়োজন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুক সংগঠন ‘উই লাভ গহিরা’। তরুনদের গড়া এই সংগঠনটি প্রথমবারের মতো আয়োজন করেছে ‘নবান্ন পিঠা উৎসব’ নামের এই পিঠা উৎসব। সকাল থেকে এ উৎসবের হরেক রকম পিঠা নিয়ে স্বাচ্ছন্দ্য হাজির হয় আশপাশ ছাড়াও দূর-দূরান্তের গৃহকন্যা, গৃহবধূরা। সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়া এ উৎসব চলে দুপুর ১টা পর্যন্ত। পিঠা উৎসব উপলে মুক্ত মঞ্চে গহিরা উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিকিা স্মৃতিকণা বিশ্বাস ‘পৌষ পার্বনে পিঠা খেতে বসে খুশিতে ভীষ্ম খেয়ে আরো উল্লাস বেড়েছে আমাদের শিার্থীদের মনে’ কবিতার সুরে নিজ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। ‘উই লাভ গহিরা’র বাপ্পি, মিজান, আরিফের পরিচালনায় এ পিঠা উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর কাজী মো. ইকবাল, নাছিমা আকতার, জেবুন নেছা, নজরুল ইসলাম, নূর আয়েশা, অধ্য মোস্তফা কামাল, ঢাকা ব্যাংক ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন, মিজানুর রহমান, নুরুল আজিজ, পিবলু, রাজু ভট্টাচার্য্য, মর্তুজা, মনসুর, আবদুল মান্নান, আজগর, সাকিব, মোরশেদ, প্রধান শিকিা নাজমা রহমান, ইব্রাহিম, জুয়েল, ফয়সাল, খোকন, সুজন চৌধুরী।
    গহিরার রেনেসা পারভেজ, তুষা, মোবারক খীলের রাজু নাথ, লুচি, পারু আকতার, সাহিদা, মিলি, কহিনুর আকতার, মোলভী বাড়ির শারমিন আকতার, মনোয়ারা বেগম, সৈয়দা আয়েশা, চৌধুরী বাড়ির জান্নাতুল ফেরদৌস, দিলরুবা আকতার, নরসিংদীর আয়েশা ছিদ্দিকা নিজ হাতে বানিয়ে নিয়ে আসেন নানা রকম মনকাড়া পিঠা। ১২টি সুদৃশ্যে স্টলে এসব পিঠা তারা নিজেরাই প্রদর্শনীতে দেন। এ প্রসঙ্গে তারা বলেন পিঠা উৎসকে নিজেদের বানানো পিঠা সবাইকে দেখাতে পেরে আনন্দিত হয়েছি। আমাদের উদ্যেশ্যে নতুন প্রজন্মের কাছে অপরিচিত পিঠা তুলে ধরা। পিঠা প্রদর্শনীতে আসা আলহাজ কাজী মো. ইদ্রিছ বলেন ‘এখানে এসে আনকমন কিছু পিঠা দেখতে পেলাম। ভালো লেগেছে।’ ‘উই লাভ গহিরা’র উদ্যোক্তা বাপ্পি, মিজান, আরিফ বলেন ব্যতিক্রমধর্মী কিছু করতে চাই আর গহিরাকে সারা বিশ্বে তুলে ধরার জন্যে আমাদের প্রচেষ্ঠা। ভবিষ্যতে এই প্রচেষ্টায় আরো অনেক কিছু নতুন মাত্রা যোগ হবে।’

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here