রাউজান যুবলীগ চেয়ারম্যানের বাড়িতে নেতাকর্মীদের মিলন মেলা

    0
    2
    2fc5267e32f621460859795305dc50d6রাউজানের সুলতানপুর নিজ নতুন বাড়িতে বসে দলীয় নেতাকর্মী, আত্মীয় স্বজন, শুভাকাঙক্ষীদের সাথে গত তিন দিন ধরে সময় কাটাচ্ছে আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী। তিনি সপরিবারে বাড়িতে এসেছেন গত বৃহস্পতিবার। যুবলীগের চেয়ারম্যানের আগমন সংবাদে জেলা উপজেলার আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা তিনদিন ধরে এখানে আসছে সৌজন্য সাক্ষাতে। নেতাকর্মীদের ভিড় সামলাতে তৎপর রয়েছে থানা পুলিশ। জানা যায় যুবলীগের এই শীর্ষ নেতার সাথে সাক্ষাতদানকারীদের জন্য চালু রাখা হয়েছে মেজবানের আদলে খাবার ব্যবস্থা। গতকাল শনিবারও ছিল এখানে নেতাকর্মীদের প্রচন্ড ভিড়। জানা যায়, যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী সৌজন্য সাক্ষাতকালে দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য বলেছেন সত্যিকারের দেশপ্রেম নিয়ে দলের কর্মসূচি বাস্তবায়নে কাজ করতে হবে। নিজেদের আখের গোছানোর জন্য যারা দলের নাম ভাঙিয়ে অপকর্ম করছে তাদের ব্যাপারে তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন দলীয় সভানেত্রী নিজের মেধা, শ্রম দিয়ে দেশকে মর্যাদার আসনে বসানোর জন্য কাজ করছেন। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের সাফল্য দেখে দেশি বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীরা কূটকৌশলে মেতে উঠেছে। তিনি ক্ষোভ ও দুঃখ প্রকাশ করে বলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা অনেক মন্ত্রী এমপি’কে বিশ্বাস করে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব প্রদান করেছিলেন। কিন্ত তাদের অনেকেই ক্ষমতা অপব্যবহার করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করেছে। অনেকেই আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছেন। জানা যায়, গতকাল রাউজানের প্রায় প্রতিটি ইউনিয়ন থেকে আওয়ামীলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীরা তার সাথে সাক্ষাত করেন। তাদের মধ্যে বেশির ভাগ ছিল সমাগত ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রতীক প্রত্যাশী। গতকাল যুবলীগের চেয়ারম্যানের সাথে সাক্ষাতদানকারীদের মধ্যে ছিলেন- নগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব খোরশেদ আলম সুজন, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র দেবাশীষ পালিত, নগর শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক বখতেয়ার উদ্দিন খান,রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মুসলিম উদ্দিন খান, আওয়ামী লীগ নেতা কামাল উদ্দিন আহম্মদ, স্বপন দাশ গুপ্ত, নায়েম উদ্দিন চৌধুরী, কাউন্সিলর বশির উদ্দিন খান, সাইফুল ইসলাম চৌধুরী রানা, চেয়ারম্যান আবদুর রহমান চৌধুরী, চেয়ারম্যান লায়ন সাহাবুদ্দিন আরিফ, কাজী দিদারুল আলম, সরওয়ার্দি সিকদার, সুকুমার বড়ুয়া, মুজাহেদ উদ্দিন চৌধুরী লিংকন, পৌর কাউন্সিলর জানে আলম জনি, এড. সমীর দাশ গুপ্ত, এড. দিলীপ চৌধুরী, জান্নাতুল ফেরদৌস ডলি, আজাদ হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সদস্য আবদুল হামিদ, আ.স.ম ইয়াছিন মাহামুদ, নাজিম উদ্দিন তালুকদার, নগর যুবলীগের আহবায়ক মহিউদ্দিন বাচ্চু, যুগ্ম আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন খোকা, ফরিদ আহমদ, মাহাবুবুল হক সুমন, উত্তর জেলা যুবলীগের সভাপতি এসএম আলম মামুন, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান, দক্ষিণ জেলা যুবলীগের সভাপতি আ.ম.ম টিপু সুলতান চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক পার্থ সারথি চৌধুরী, সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী দিদারুল আলম, আবদুল মোমেন, মোহাম্মদ হোসেন মাহামুদ, নাছির উদ্দিন, মোবারক উল্লাহ, জিয়াউল হক সুমন. রাউজান উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউন্সিলর জমির উদ্দিন পারভেজ, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, গৌতম পালিত টিকলু, শওকত হোসেন, সারজু মোহাম্মদ নাছের, হাসান মোহাম্মদ রাসেল, আবদুল লতিফ, আহসান হাবিব চৌধুরী, আলহাজ্ব মঈনুদ্দিন মোস্তাফা, তপন দেসহ উপস্থিত ছিলেন জেলা,মহানগর ও উপজেলার কয়েক শত আওয়ামীলীগ যুবলীগ ছাত্রলীগের নেতাকর্মী। উল্লেখ্য যে, যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক আজ রাতে ঢাকার উদ্দেশ্যে রাউজান ছাড়ছেন।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here