বাংলা ভাইয়ের দুই সহযোগী ও এক হিযবুত কর্মী গ্রেপ্তার

    0
    13
    নিজস্ব প্রতিবেদক, রাউজানটাইমস ২৪ :
    নগরীর শেরশাহ কলোনি ও সীতাকু-ের কুমিরা থেকে তিন জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা হলেন জুলফিকার আলী, আলাউদ্দিন রুবেল ও মুহিবুল আলম। তন্মধ্যে জুলফিকার আলী ও আলাউদ্দিন রুবেল বাংলা ভাইয়ের সহযোগী। মুহিবুল আলম হিযবুত তাহরীর সদস্য বলে পুলিশ জানিয়েছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে। altaf-2-2-650x525অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) রেজাউল মাসুদ জানান, সীতাকু- থেকে আটক দুই জঙ্গি বাংলা ভাইয়ের সঙ্গে কাজ করতো। এখন তারা নিজ নিজ এলাকায় অবস্থান করে শক্তি সঞ্চয় করছিল। কুমিরা থেকে গ্রেপ্তার জুলফিকার মসজিদ্দা দেলিপাড় এলাকার মৃত জহুরুল হকের পুত্র এবং আলাউদ্দিন একই এলাকার মৃত নুরুল আফছারের পুত্র। আলাউদ্দিন আট বছর সাজা ভোগ করে কয়েক বছর আগে জেল থেকে বেরিয়েছিল। ২০০১ সালে আবদুর রহমান ওরফে বাংলা ভাই সীতাকু-ে এসেছিলেন জঙ্গি সংগঠন গড়তে।

    রাউজান সংবাদদাতা জানান, রাউজান রাউজান থানা পুলিশ ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হিজবুত তাহরীর এক সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে। তার কাছ থেকে হিজবুত তাহরীরের ১৮টি ক্যাটাগরির ৬৭৩টি জঙ্গি উদ্ধুদ্ধকরণ বই ও লিফলেট পাওয়া গেছে। তার নাম মুহিবুল আলম মুহিম। সে রাউজান উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের এয়াছিন নগর গ্রামের খোরশেদ আলমের ছেলে।
    রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উলাহ বলেন ‘মুহিবুল চট্টগ্রাম নগরীর বায়েজিদ থানার শেরশাহ কলোনিতে আত্মগোপনে ছিল। গোপন সংবাদে খবর পেয়ে থানার সেকে- অফিসার খলিলুর রহমান, এসআই আল আমিন ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল শেরশাহ কলোনিতে অভিযান চালিয়ে মুহিবুলকে গ্রেপ্তার করে। তার কাছ থেকে নিষিদ্ধ সংগঠনটির ১৮টি ক্যাটাগরির ৬৭৩ জঙ্গি উদ্বুদ্ধকরণ বই ও লিফলেট উদ্ধার করা হয়। তার বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার রাতে সন্ত্রাসী কর্মকা- ঘটানোর অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে ।’ থানা পুলিশ জানায়, এর আগে জামিনে মুক্তি পেয়ে হিজবুত তাহেরীর সদস্য মহিবুল আলম আবারো সরকারবিরোধী কর্মকা-ে লিপ্ত হয়। সে বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি পরিক্ষার্থী বলে একাধিক সূত্র জানায়।
    পূর্বকোণের আদালত প্রতিবেদক জানান, নগরীর শেরশাহ কলোনি থেকে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেপ্তার হিজবুত তাহরিরের সদস্য মুহিবুল আলমের ২ দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল শুক্রবার চট্টগ্রাম জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হেলাল উদ্দিন এর আদালতে রাউজান থানা পুলিশ ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত দুইদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
    আটকের পর তাকে সাথে নিয়ে গ্রামের বাড়ি ইয়াছিন নগরে অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এ ঘটনায় মুহিবের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবিরোধী আইনে রাউজান থানায় মামলা দায়ের করা হয়। এরপর গতকাল শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here