জামিনে মুক্ত নগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক রনি

    0
    25

    ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে দ-িত নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি গতকাল বৃহস্পতিবার মুক্তি পেয়েছেন। বিকালে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পান তিনি।

    উচ্চ আদালত থেকে রনির জামিনের নথি কারাগারে আসার পর তাকে মুক্তি দেয়া হয়।
    উল্লেখ্য গত ৭ মে হাটহাজারী উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মির্জাপুর ইউনিয়নের চারিয়া বোর্ড স্কুল কেন্দ্রের বাইরে থেকে একটি নাইন এমএম পিস্তল ও ১৫ রাউন্ড গুলি এবং একটি সিল ও নগদ ২৬ হাজার টাকাসহ রনিকে গ্রেপ্তার করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পরে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অপরাধে কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হারুনর রশিদ তাকে দুই বছরের কারাদন্ড দেন। এছাড়াও রনির কাছ থেকে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে একটি মামলা করে পুলিশ। গত ২৫ মে ভোটে প্রভাব বিস্তারের মামলায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের দেয়া দ-ের বিরুদ্ধে রনির আপিল মঞ্জুর করে জামিনের আদেশ দিলেও অস্ত্র আইনের মামলায় তার জামিন নাকচ করে দিয়েছিলেন চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজ। পরে রনি উচ্চ আদালতে জামিনের আবেদন করলে গত ১৩ জুন হাইকোর্টের একটি দ্বৈত বেঞ্চ তাকে ছয়মাস অথবা পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল করা পর্যন্ত অন্তর্বর্তীকালিন জামিন এবং জামিন প্রশ্নে রুল দেয়। এরপর ১৯ জুন অস্ত্র আইনের মামলায় অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। ফলে মুক্তি পাননি রনি। এ অবস্থায় জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর আবেদন করেন রনি। মঙ্গলবার বিচারপতি কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী ও বিচারপতি আমির হোসেনের বেঞ্চ আরও তিন মাস রনির জামিনের মেয়াদ বাড়ায়। পরে তার আইনজীবী শ ম রেজাউল করিম বলেছিলেন, আগে উচ্চ আদালত রনিকে পুলিশ প্রতিবেদন অথবা ছয় মাস, যেটি আগে হয় সে সময় পর্যন্ত জামিন দিয়েছিল। এর ভেতর পুলিশ প্রতিবেদন হয়ে গেছে। এ অবস্থায় জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য নতুন করে দরখাস্ত দেয়া হয়। আদালত তিনমাসের জন্য জামিনের মেয়াদ বর্ধিত করেছেন। ফলে তার মুক্তি পাওয়ার ক্ষেত্রে আইনগত কোনো বাধা নেই।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here