রাউজানের হলদিয়ায় পিটুনিতে একব্যক্তি নিহত, বন্দুক উদ্ধার

    0
    9

    রাউজানটাইমস ডেস্ক :-

    রাউজানের হলদিয়া ইউনিয়নের এয়াছিন নগর এলাকায় পিটুনিতে আবুল হাশেম প্রকাশ হেজা হাশেম (৪৮) নামের একব্যক্তি নিহত হয়েছে। পুলিশ বলেছে ডাকাতির প্রস্তুতির সময় জনতার পিটুনিতে সে নিহত হয়েছে। তারা ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করেছে একটি বন্দুক, ৪টি কিরিচ ও এক রাউন্ড কার্তুজ। তবে একটি ফেসবুক আউডিতে নিহত ব্যক্তিকে রাউজান পৌরসভা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। নিহত হাশেম রাউজান পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের ছত্তরপাড়া এলাকার মৃত হোসেন আলীর ছেলে।

    Raozan-pic-hasem-453x525রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেপায়েত উল্লাহ বলেন ‘রাউজান উপজেলা হলদিয়া ইউনিয়নের এয়াছিন নগর গলাচিপা এলাকার আফজইল্ল্যা টিলার পার্শ্বে গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে ডাকাত দল ডাকাতির প্রস্তুতি নেওয়ার সময় এলাকার লোকজন টের পেয়ে তাদের ধাওয়া করে। এ সময় জনতা ডাকাত দলের সদস্য আবুল হাশেম প্রকাশ হেজা হাশেম (৪৭) কে ধরে ফেলে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত উত্তেজিত জনতা তাকে পিটুনি দেয়। এতে সে মারাত্মকভাবে আহত হয়। এ ঘটনার সংবাদ পেয়ে আমি ও চিকদাইর পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত হাশেমকে উদ্ধার করে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠাই। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে নিয়ে যাওয়া যায়। গতকাল শুক্রবার সকাল পৌনে ৬টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।’
    রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্লাহ জানান ‘ঘটনাস্থল থেকে একটি দোনলা দেশীয় তৈয়ারী এলজি, ৪টি কিরিচ ও একটি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে।’
    এদিকে একটি সূত্র জানিয়েছে, নিহত হাশেমের শ্বশুর বাড়ি এয়াছিন নগরস্থ গলাচিপায়। বৃহস্পতিবার তিনি তার শ্বশুর বাড়িতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পথে কিছু লোক তাকে পিটিয়ে হত্যা করে। হলদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম চৌধুরী বলেন ‘গভীর রাতে হলদিয়ায় জনতা হাশেমকে গণপিটুনি দিয়ে হত্যা করেছে। শুনেছি সে হলদিয়ায় দুটি ও এর আগে একটিসহ তিনটি বিয়ে করেছে।’
    থানা পুলিশ জানিয়েছেন ডাকাতি প্রস্তুতি ও অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এদিকে রাউজান বিএনপির একটিপক্ষ এটিকে হত্যা দাবি করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here