রাউজানে বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি

    0
    7

    জাহেদুল আলম । রাউজানটাইমস

    রাউজান উপজেলায় আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। ধান পাকতে শুরু করলেও কোথাও কোথাও ধান কাটতে ব্যস্ত সময় পার করছে এখানকার কৃষকরা। তবে যারা প্রথম দিকে ধান চারা রোপন করেছেন তারাই মূলত ধান কেটে ঘরে তুলছেন। আগামী ১৫-২০ দিনের মধ্যে পুরোদমে ধান কাটা শুরু হবে বলে জানিয়েছে কৃষকরা। জানা যায়, চলতি মৌসুমে উপজেলায় উফসী ১১ হাজার ৭৫ হেক্টর ও স্থানীয় ২৩৫ হেক্টরসহ মোট ১১ হাজার ৩শ’ ১০ হেক্টর জমিতে আমন ধানের চাষ হয়েছে। আবহাওয়া অনকূলে থাকায় ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। এবছর রোগবালাই কম হয়েছে।

    raozan-dhan-kata-pic-800x431কৃষকরা জানান, চলতি মৌসুমে আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। মাঠের পর মাঠ পাকা ধানে কৃষকদের মুখে হাসি ফুটেছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রাসারণ অধিদপ্তর থেকে কৃষকদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দেয়া হয়েছে। গতকাল শুক্রবার রাউজান পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ডে গিয়ে দেখা যায়, সকাল থেকে কৃষকরা ধনা কাটতে শুরু করেছে। তারা খুব আনন্দিত কোন এবার ফসল ঘরে তুলতে পেরে। সংশিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার খালগুলো খনন করে সেচ সুবিধা, উন্নত চাষাবাদের জন্য যন্ত্রপাতি প্রদান,

    প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সার-বীজ প্রদানের মাধ্যমে পুনবাসন করা, স্বল্প খরচে চাষাবাদের জন্য সব অধুনিক যন্ত্রপাতি প্রদানসহ স্বল্পমূল্যে ৩০ টি পাওয়ার টিলার বিতরণ, প্রতিটি ১ লাখ ৭৮ হাজার টাকা দামের ধান কাটার যন্ত্রসহ বিভিন্ন কৃষি যন্ত্রপাতি বিতরণ করেছেন উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর ও স্থানীয় সাংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী।
    উপজেলা কৃষি কর্মকর্তারা জানান, রাউজানের সংসদ এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী কৃষকদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। প্রতিনিয়ত খোঁজ খবর নিচ্ছেন এখানকার কৃষকদের। তিনি বলেন, এবার আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় রোপনকৃত আমন ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। কৃষি বিভাগের নির্ধারণকৃত লক্ষ্যমাত্রা শতভাগ অর্জিত হবে আশা প্রকাশ করেন তিনি বলেন উপজেলার ১৪ টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরএলাকার ১১ হাজার ৩শ’ ১০ হেক্টর জমিতে আমনের চাষাবাদ হয়েছে ও ফলনও ভাল হয়েছে। তিনি জানান, রাউজানের কয়েকটি এলাকার কৃষকরা পাকা বোরো ধান কাটা শুরু করেছে। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পুরোদমে ধান কাটা শুরু হবে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here