রাউজানে বাঙ্গি-তরমুজের মৌসুমী হাট

    0
    19

     জাহেদুল আলম, রাউজানটাইমস

    রাউজান উপজেলায় বাঙ্গি-তরমুজের মৌসুমী হাট জমে উঠেছে। চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কের দু’পাশে শরতের দোকান প্রকাশ সত্যের দোকান এলাকায় প্রত্যেক বছরের মতো এবারো বাঙ্গি তরমুজের হাটে বিকিকিনির ধুম পড়েছে। রাউজানের বাঙ্গি-তরমুজ মানেই আলাদা স্বাদ, আলাদা ঐতিহ্য। এই ঐতিহ্যকে আরো ভিন্নতা দিয়েছে বাঙ্গি তরমুজের মৌসুমী বাজারটি। এবার অসময়ে বৃষ্টি হওয়াতে বাঙ্গি চাষে লোকসান গুনতে হচ্ছে চাষিদের। গত কয়েকবছর আগে শরতের দোকান এলাকার বাজারটি স্থানীয় কৃষকদের বাঙ্গিতে ভরপুর থাকত, বর্তমানে অন্য এলাকা থেকে এনে ব্যবসা করছেন স্থানীয়রা।

    সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা যায়, বাঙ্গি-তরমুজের এই ভর মৌসুমে রাউজানের এই অস্থায়ী পাইকারী ও খুচরা বাজারটি ক্রেতা-বিক্রেতার পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠেছে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নানা রকম ক্রেতায় ভরপুর থাকে বাজারটি। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন, শরতের দোকান এলাকার বাজার থেকে প্রতিদিন পাইকাররা ট্রাকে করে নিয়ে যাচ্ছে বাঙ্গি-তরমুজ। বিশেষ করে চট্টগ্রাম শহর, রাঙামাটি শহর, হাটহাজারী, ফটিকছড়ি, রাঙ্গুনিয়া, রাউজানের বিভিন্ন ইউনিয়নসহ এলাকার পাইকারী ব্যবসায়ীরা নিয়ে যান এখানকার বাঙ্গি-তরমুজ। বেয়াইন বাড়িতে উপহার স্বরূপ পাঠানোর জন্য শরতের দোকানের বাঙ্গি তরমুজই এখন রাউজানের অনেকের ভরসা। এজন্য প্রতিদিন শত শত নারী-পুরুষ সিএনজি টেক্সি করে নিয়ে যাচ্ছেন বাঙ্গি তরমুজ।
    স্থানীয় চাষীরা জানান, এই এলাকায় বাঙ্গির চাষ ভালো হলেও তরমুজ চাষ খুব কম হয়। কারণ হিসেবে তারা জানান, তরমুজের সাইজ তেমন বড় হয়না কিন্তু এখানকার বাঙ্গির স্বাদ বেশি। এসব এলাকার মানুষ তাদের সারা বছরের অনেকটা আয়-উপার্জন নির্ভর করেন এই মৌসুমে বাঙ্গি-তরমুজ এর উপর। জানা গেছে, ফসলি জমি থেকে আমন ধান কেটে নেওয়ার পর রাউজানের সুলতানপুর কাজিপাড়া, ডাবুয়ার কেয়কদাইর, পশ্চিম সুলতানপুর, চিকদাইর, দক্ষিণ হিংগলা, পূর্ব ডাবুয়া, রাউজান ইউনিয়নের খলিলাবাদ, পূর্ব রাউজান, কদলপুর ইউনিয়নের শমসের পাড়া, হলদিয়া, ডাবুয়া, পূর্ব সুলতানপুর গহিরা, কু-েশ্বরী, জয়নগর বড়–য়াপাড়ায় বাঙ্গির বীজ বপন করেন কৃষকরা। প্রতি ৪০ শতক জমিতে বাঙ্গির চাষাবাদে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা খরচ হওয়ার পর ফলন আসলে প্রতি চল্লিশ শতক জমি থেকে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা আয় করা যায়।
    প্রসঙ্গত, প্রায় ২৫ বছর আগে সুলতানপুর এলাকার এক বৃদ্ধ ক্ষেত থেকে বাঙ্গি তরমুজ এনে রাঙামাটি সড়কের রাউজান শরতের দোকানের পাশে এসে বসেছিলেন বিক্রির জন্য। তার দেখাদেখিতে সেই থেকে এখানে বাঙ্গি তরমুজের হাট বসে আসছে। স্থানীয়দের ধারণ এই হাটে প্রত্যেক বছর কোটি টাকার বাঙ্গি তরমুজের ব্যবসা হয়ে থাকে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here