গুরুতর অসুস্থ আল্লামা শফী, ঢাকার হাসপাতালে ভর্তি

    0
    5

    নগরীর সিএসসিআর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দেশের শীর্ষ ও প্রবীণ আলেম হেফাজত আমীর শাইখুল ইসলাম আল্ল­ামা শাহ আহমদ শফী’র শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিশেষায়িত হেলিকপ্টার এম্বুলেন্সযোগে গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৪টায় ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাকে পুরোনো ঢাকার আজগর আলী হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করে বর্তমানে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের নিবীড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

    সুত্রে জানা গেছে, আজগর আলী হাসপাতালে মেডিসিন বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. সরওয়ারে আলম এবং নিউরোলজি বিশেষজ্ঞ প্রফেসর ডা. নূরল হুদার তত্ত্বাবধানে আল্লামা শাহ আহমদ শফীর চিকিৎসা চলছে। হেফাজত আমীরের শয্যাপাশে তার বড় পুত্র মাওলানা মুহাম্মদ ইউসুফ এবং একান্ত সচিব মাওলানা শফিউল আলমসহ নিকটাত্মীয়রা রয়েছেন।
    হেফাজত আমীরের প্রেস সচিব মাওলানা মুনির আহমদ জানিয়েছেন, চিকিৎসকরা দর্শনার্থীদের হাসপাতালে ভিড় না করতে বার বার অনুরোধ করেছেন। কারণ, এতে চিকিৎসার কাজ বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। হেফাজত আমীরের প্রেসসচিব দেশবাসীর কাছে হেফাজত আমীরের রোগমুক্তি ও দীর্ঘ হায়াতের জন্য বিশেষ দোয়া কামনা করেছেন।
    সূত্রে জানা গেছে, শারীরিক দুর্বলতা অনুভব করায় আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে গত ১৮ মে বৃহস্পতিবার নগরীর সিএসসিআর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. গোফরানুল হক, নিউরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. হাসানুজ্জামান এবং হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ইবরাহীম চৌধুরী’র তত্ত্বাবধানে হেফাজত আমীরকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। হাসপাতালে হেফাজত আমীরের রক্তচাপ বার বার কমে যাওয়ায় এবং ফুসফুসে পানি দেখা যাওয়ায় ২১ মে থেকে তাকে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। পরবর্তীতে চট্টগ্রামের বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের মেডিকেল বোর্ডের মাধ্যমে তার শরীরে পেসমেকার স্থাপন করা হয়। এতে রক্তচাপ স্বাভাবিক ও ফুসফুসের পানি সরে গেলেও শারীরিক দুর্বলতা স্বাভাবিক হচ্ছিল না। গত ১ জুন হেফাজত আমীরকে আইসিইউ থেকে সাধারণ কেবিনে আনার তিনদিনের মাথায় শারীরিক অবস্থার অবনতি ও পুনরায় ফুসফুসে পানি জমে শ্বাস কষ্ট দেখা গেলে আবারো তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। এরপরই আরো উন্নত চিকিৎসার লক্ষ্যে তাকে ঢাকায় নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়।
    সিএসসিআর হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ২১ মে থেকে আল্লামা শাহ আহমদ শফী মুখে খাবার নিতে পারছেন না। তাকে রাইস টিউবের মাধ্যমে তরল খাবার দেওয়া হচ্ছে।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here