ড্র’র স্বপ্নে গুড়েঁবালি, হার দিয়ে শুরু টাইগারদের

    0
    2

    ক্রীড়া প্রতিবেদক :
    ৩৩৩ রানের বিশাল পরাজয় দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা মিশন শুরু করেছে বাংলাদেশ। শেষ দিনে বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিল ড্র’র।সাত ইউকেট হাতে নিয়ে তিনটি সেশন ইউকেটে পড়ে থাকতে পারলেই সেই স্বপ্নটা হাতের মুঠোয় ধরা দিত মুশফিকদের।ড্র দূরের কথা পঞ্চম দিনের নড়বড়ে শুরুর ধাক্কাটা সামলে দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে কেউ গড়ে তুলতে পারেনি ব্যাট হাতে প্রতিরোধের দেওয়াল। ফলাফল, ৩৩৩ রানে ম্যাচ জিতে টেস্ট সিরিজে এগিয়ে গেল প্রোটিয়ারা। আগের দিনের তিন উইকেটে ৪৯ রান নিয়ে পঞ্চম দিনের খেলা শুরু করেছিল বাংলাদেশ। ‘নো’ বলের কল্যাণে জীবন পাওয়া মুশফিকের ব্যাটই ছিল পঞ্চম দিনে টাইগারদের ভরসা। কিন্ত চতুর্থ দিন শেষে ১৬ রানে অপরাজিত থাকা অধিনায়ক পেসার কাগিসো রাবাদার করা দিনের প্রথম ওভারের চতুর্থ বলে স্লিপে হাশিম আমলার দারুণ সাজঘরে ফিরে আসলে ম্যাচে ড্র’র স্বপ্ন ফিকে হয়ে আসে বাংলাদেশের। স্কোরবোর্ডে এদিন কোন রান যোগ না করেই সাজঘরে ফিরলেন। এক ওভার পর ফিরে যান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। রাবাদার দুর্দান্ত এক বলে তার স্টাম্প উড়ে যায়। আউট হওয়ার আগে তিনি করেন নয় রান।
    দলীয় ৬৭ রানের মাথায় রাবাদার তৃতীয় শিকারে পরিণত হন লিটন। পরের ওভারে কেশব মহারাজের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন সাব্বির রহমান। লিটন-সাব্বির দুজনই ফেরেন চার রানে। একশ’র নিচেই অলআউট হওয়ার শঙ্কায় পড়ে বাংলাদেশ। এই শঙ্কাকে আরও বাড়িয়ে তোলেন বাঁ-হাতি স্পিনার কেশব মহারাজ। সাব্বিরের পর তাসকিন আহমেদকেও এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ফিরিয়ে দেন। যদিও রিভিউ নিয়েছিলেন তাসকিন, কিন্তু বাঁচতে পারেননি।
    টপ অর্ডারের পাশাপাশি এদিন উইকেটে পড়ে থাকার মানসিকতা দেখা যায়নি লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদেরও। এমনিতেই উইকেট যাওয়ার মিছিল, তার মাঝেই উপহার হিসেবে বাংলাদেশ পায় রান আউট। অযথা দ্বিতীয় রান নিতে গিয়ে রান আউটের শিকার হলেন শফিউল ইসলাম। এরপও ১১ বল খেলে এক রান করে মহারাজের তৃতীয় শিকারে পরিণত হন মুস্তাফিজুর রহমান। ব্যাটিং বিপর্যয়ের মাঝে একাই প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ৩২ বলে ১৫ রান নিয়ে অপরাজিত থেকেই মাঠ ছাড়েন তিনি।
    এর আগে টসে হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ডিন এলগারের ১৯৯, হাশিম আমলার ১৩৭ ও এইডেন মার্করামের ৯৭ রানে ভর করে ৪৯৬ রানে নিজেদের প্রথম ইনিংস ঘোষণা করে দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে মুমিনুল হক ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটে ৩২০ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় বাংলাদেশ। ১৭৬ রানে এগিয়ে থেকে দক্ষিণ আফ্রিকা নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে আরও ২৪৭ রান যোগ করে। ফলে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ৪২৪ রানের।

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here