৩ দিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে না ফেরার দেশে রাউজানের সায়েম

0
83
রায়হান ইসলাম। রাউজানটাইমস
চট্টগ্রামের রাউজানে টানা তিনদিন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত মীর সায়েম (২১) নামের এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে।
শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে থাকা অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে সে।
নিহত সায়েম উপজেলার কদলপুর ইউনিয়নের মীর বাগীছা এলাকার মীর বাড়ির এস.এম আবুল কালামের পুত্র। সায়েম পেশায় ইলেকট্রেশিয়ান ছিলেন পাশাপাশি বাবার চায়ের দোকানে সাহায্য করতেন।
জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার দিকে তার বন্ধুদের সাথে মোটরসাইকেল যোগে উপজেলার খেলারঘাট কর্ণফুলী নদীর পাড়ে গুঁড়তে গিয়ে ছিল সে। রাত সাড়ে ১১টার দিকে ফিরতি পথে বাইক থেকে ছিটকে পড়ে গুরুতর আহত হয় সায়েম।
ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে বন্ধুরা প্রথমে রাউজান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। গতকাল চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে তাকে নগরীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে আইসিইউ’তে রাখা হয়। সেখানে আজ সন্ধা ৭ টায় তার মৃত্যু হয়।
নিহতের একই বাইকে থাকা বন্ধু তায়জানুর রশীদ বিপ্লব রাউজানটাইমসকে বলেন, বন্ধুরা মিলে গুরতে গিয়েছিলাম। ফিরতি পথে আমরা একটি মোর অতিক্রম করে আরেকটি মোর অতিক্রম করার সময় ব্র্যাক করলে সে আমার গায়ে এসে পড়লে আমার পায়ে ভর পরার ফলে হঠাৎ গাড়ী থেমে গিয়ে গাড়ি গুড়ে যায়। এসময় সে রাস্তায় ছিটকে পড়ে গিয়ে মাথায় আগাত পায়। সিয়াম সে যায়গায় বমি করে দিলে আমরা প্রথমে তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়।
তিনি আরও জানান, মূলত বাইকে ধরে না বসার কারনে এরকম দূঘটনার শিকার হন তারা।
নিহতের চাচা মোহাম্মদ আনিছ রাউজানটাইমসকে কে বলেন, ঘটনার দিন রাতে ৪ টি মোটরসাইকেল ও একটি সিএনজি যোগে ওরা ১৫-২০ জন মত বন্ধু উপজেলার পযটন স্পট খেলার ঘাটে গুরতে যায়। সেখান থেকে ফেরার পথে বাইক দূঘটনার শিকার হয় সে। তিনদিন চিকিৎসাধীন তাকা অবস্থায় আজ সন্ধায় মৃত্যুবরণ করে সে।
আজ ১১ সেপ্টেম্বর (রবিবার) সকাল ১০ টায় জানাযা শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here